বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তানঃ আবারো দুর্নীতি! আম্পায়ারের দুর্নীতির শিকার সাকিব আল হাসান | টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২২

সাকিব আল হাসান | সাকিব আল হাসান বনাম পাকিস্তান এলবিডব্লিউ বিতর্ক | এলবিডব্লিউ | বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান | টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২২

বরাবরই আইসিসির বড় ইভেন্টগুলোতে চরম দূর্নীতির শিকার হয় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ভারতের বিপক্ষের ম্যাচে বাংলাদেশের সাথে দুর্নীতি কম হয়নি। ভারতের পর এবার পাকিস্থানের বিপক্ষের ম্যাচেও চরম দুর্নীতির শিকার হয়েছে বাংলাদেশ।

পাকিস্তানের বিপক্ষে সাকিব আল হাসানকে যেভাবে এলবিডব্লিউ আউট দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকান আম্পায়ার আদ্রিয়ান হোল্ডস্টক তাতে অবাক এবং বিস্মিত সবাই।

ম্যাচের তখন ১১তম ওভার চলছিল। শাদাব খানের বলের ক্রিজে আসা নতুন ব্যাটার সাকিব আল হাসান। শাদাব খানের সেই ওভারের পঞ্চম বলে এলবিডব্লিউর জোরালো আবেদন করে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। বলটি পিচ করে সাকিব আল হাসানের বুট স্পর্শ করে। অনেক চিন্তাভাবনা করে আউটের সিদ্ধান্ত দেন অনফিল্ড আম্পায়ার হোল্ডস্টক। আম্পায়ারের এমন সিদ্ধান্তে অবাক সাকিব নিজেও। রিভিউ নিয়ে নেন সাথে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে।

পরে রিভিউতে দেখা গেল, বলটি প্রথমে ব্যাটে স্পর্শ করে স্পর্শ করেছে সাকিবের বুটে। আল্ট্রাএজে তা সুস্পষ্ট দেখা যাচ্ছিলো। বলটি ব্যাট স্পর্শ করার সময় ব্যাট স্পর্শ করে গ্রাউন্ড অথচ আম্পায়ার গ্রাউন্ডে ব্যাট স্পর্শ করার স্পাইকটাকেই ধরে নিয়েছে। অথচ ব্যাটে যে বল লেগেছে সেই স্পাইকটাকে আমলে নেয়নি অনফিল্ড আম্পায়ার।

আম্পায়ার এ সিদ্ধান্তে বেজায় চটেছেন সাকিব আল হাসান। বার বার আম্পায়ারকে জিজ্ঞেস করলেও আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত বহাল রাখেন। যার ফলে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে মাঠে থাকা সকল দর্শকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Enable Notifications OK No thanks