Cricket News

টেস্টে বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছেন সাকিব!!

দীর্ঘ এক বছর নিষেধাজ্ঞা কাটানোর পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে টেস্টে প্রত্যবর্তন ঘটিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু ভাগ্য যে সাকিবের সাথে নেই। প্রত্যবর্তনের ম্যাচ থেকেই ইঞ্জুরির কারণে ছিটকে যান সাকিব আল হাসান। সেই ইঞ্জুরির কারণে খেলতে পারবেন না নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষের সিরিজগুলোও। তবে নিউজিল্যান্ড সফরে এমনিতেই ছুটিতে থাকতেন সাকিব। সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতেই মূলত নিউজিল্যান্ড সফর থেকে ছুটি নিয়েছিলেন সাকিব।

এসবের মাঝে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলের ১৪তম আসরে দল পান সাকিব আল হাসান। ৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে সাকিবকে দলে টেনে নেয় কলকাতা নাইট রাইডার্স। আইপিএলে দল পাওয়ার পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ছুটি চেয়ে বিসিবির কাছে চিঠি পাঠান সাকিব। বিসিবিও সেই ছুটি মঞ্জুর করে দেন। তবে এই কান্ডের জন্য বেশ সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে সাকিবকে। মূলত আইপিএল খেলার জন্য দেশের ক্রিকেটকে না বলাটা মেনে নিতে পারেননি বাংলাদেশ ক্রিকেট ভক্তরা।

তবে এমন কান্ডে সাকিবের উপর বিসিবিও কিছুটা চটেছে। যার কারণে চলতি বছরে টেস্টে বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়তে পারেন সাকিব আল হাসান। তবে এখনো কেন্দ্রীয় চুক্তির কোনো ঘোষণা দেওয়া হয়নি। এখনো ঘোষণা না দেওয়া হলেও কেন্দ্রীয় চুক্তিতে যে সাকিব থাকছে না সে বিষয়টি অনেকটাই নিশ্চিত।

সাকিব থাকবে কিনা কেন্দ্রীয় চুক্তিতে এমন প্রশ্নের জবাবে বিসিবির অপারেন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, যেহেতু আমাদের বোর্ড সভা এখনো হয়নি। তবে আমরা এ বিষয়ে একটা সিদ্ধান্ত নিব।

তবে অন্য এক সূত্রে জানা গেছে, বিসিবি কার্যালয়ে আজই আকরাম খান, বিসিবির প্রধান নির্বাহীর সঙ্গে নির্বাচকদের মিটিং হবে। সেই মিটিংয়ে সাকিবকে টেস্টে না রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়ার সম্ভাবনায় বেশি।

নিউজিল্যান্ড সফরের যাওয়া দলের কর্মকর্তাদের সঙ্গেও কিছুদিনের মধ্যে বৈঠকে বসবে বিসিবি প্রেসিডেন্ট। সেই বৈঠকেও তোলা হবে সাকিবের বিষয়টি। তবে জানা গেছে, নির্বাচকদের তৈরি করা কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকায় সাকিবের নাম সুপারিশ করা হয়নি। এ বিষয়ে আগে বিসিবির অপারেশন্স বিভাগ সিদ্ধান্ত নিবে তারপর বিসিবি সভাপতির নিকট উপস্থাপন করা হবে।

ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ খেলার জন্য দেশের ক্রিকেটের নির্দিষ্ট ফরম্যাটকে এড়িয়ে যাওয়া ক্রিকেটারদের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে অন্যভাবে মূল্যায়ন করা হবে। তাদের বাদ দিয়ে যারা নির্দিষ্ট ফরম্যাটে খেলতে ইচ্ছুক তাদেরকেই মূল্যায়ন করবে বিসিবি। অনিচ্ছা প্রকাশ খেলোয়াড়দের কোনোভাবেই তিন ফরম্যাটের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে মূল্যায়নের করা হবে না।

টেস্টে আলাদা দল গঠন করার পরিকল্পনা রয়েছে বিসিবির। সেটা জানিয়ে দিয়েছিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী এ বিষয়ে বলেন, বোর্ডের দীর্ঘ মেয়াদি পরিকল্পনা তো আছেই। আমরা চেষ্টা করব আমাদের টেস্ট দল ও সীমিত ওভারের দুই ফরম্যাটের দল আলাদা করতে। কারণ এখন দেখা যাচ্ছে যে অনেকেই টেস্ট খেলতে চাচ্ছে না বা টেস্টের জন্য উপযোগীও না। লঙ্গার ভার্সনের জন্য আলাদা যদি দল করা যায় সেটিই কার্যকর হবে। অবশ্য এখানে পার্থক্য থাকবে খেলোয়াড় যারা শুধু টেস্ট খেলবে, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে। এখানে তো একটা পার্থক্য হতেই পারে, খুব স্বাভাবিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this:
Enable Notifications    OK No thanks