ভারত বনাম পাকিস্তানঃ শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে শেষ ওভারে নাটকীয়তায় পাকিস্তানকে হারালো ভারত!

ভারত বনাম পাকিস্তান | পাকিস্তান বনাম ভারত | ভারত ক্রিকেট দল | পাকিস্তান ক্রিকেট দল | টি-২০ বিশ্বকাপ ২০২২ | পাকিস্তান ক্রিকেট টিম | বিরাট কোহলি | বাবর আজম

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের হাইভোল্টেজ শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে পাকিস্তানকে ৪ উইকেটে হারিয়ে রোমাঞ্চকর জয় তুলে নিয়েছে ভারত।

এদিন শুরুতে টসে জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা পাকিস্তান ভারতীয় বোলারদের তোপের মুখে পড়ে। দলীয় ১৫ রানেই দলের ব্যাটিংয়ের দুই স্তম্ভ অধিনায়ক বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ানকে হারায় পাকিস্তান।

এরপর দলের ব্যাটিংয়ে হাল ধরেন ইফতেখার আহমেদ ও শান মাসুদ। দুজন মিলে গড়েন ৭৬ রানের জুটি। ব্যাটে ঝড় তুলে হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন ইফতেখার আহমেদ। এরপর দলীয় ৯১ রানে ইফতেখার আহমেদের উইকেট হারানোর পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে পাকিস্তান। হার্দিক পান্ডিয়া ও আর্শদ্বীপ সিংয়ের বোলিং তোপে দলীয় ৯৮ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে পাকিস্তান। শেষের দিকে শান মাসুদের অপরাজিত ৫১ এবং শাহিন শাহ আফ্রিদির ১৬ রানে ভর করে ১৫৯ রানের সংগ্রহ পায় পাকিস্তান।

ভারতের হয়ে বল হাতে সর্বোচ্চ তিনটি করে উইকেট শিকার করেন হার্দিক পান্ডিয়া ও আর্শদ্বীপ সিং।

জবাবে এই রান তাড়া করতে নেমে হারিস রউফে ও নাসিম শাহর বোলিং তোপে একে একে সাজঘরে ফিরেন কে এল রাহুল, রোহিত শর্মা ও সূর্যকুমার যাদব। রোহিত ও রাহুল করেন ৪ রান এবং সূর্যকুমার যাদব করেন ১৫ রান। দলীয় ২৬ রানে ৩ উইকেট হারানো ভারত আরো বিপদে পড়ে অক্ষর প্যাটেলের রান আউটের মধ্য দিয়ে। দলীয় দলীয় ৩১ রানের সময় রান আউটের শিকার হন অক্ষর প্যাটেল। ২ রান করে আউট হন তিনি।

এরপর বিপদে পড়া ভারতকে টেনে তুলেন বিরাট কোহলি ও হার্দিক পান্ডিয়া। দুজন মিলে গড়েন ১১৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। তবে ম্যাচের সব রোমাঞ্চ যেনো রয়ে গেছে শেষ ওভারের জন্য।

শেষ ওভারে ভারতের প্রয়োজন ছিল ১৬ রান। বোলিং করতে আসেন মোহাম্মদ নাওয়াজ। ওভারের প্রথম বলেই তুলে নেন হার্দিক পান্ডিয়ার উইকেট। বাবর আজমের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন পান্ডিয়া। ৩৭ বলে ২ ছক্কা ১ চারে ৪০ রান করে আউট হন পান্ডিয়া।

এরপর ওভারের চতুর্থ বলে ছক্কা মারেন বিরাট কোহলি। সেই বলটি আবার হয় নো বল। হাই নো বলের সুবাধে ফ্রি হিট পেয়ে যায় ভারত। এরপরের বল আবার ওয়াইড দিয়ে বসেন নাওয়াজ। যার ফলে ফ্রি-হিট অব্যাহত থাকে। এরপর ফ্রি হিটের বলটি স্ট্যাম্পে লেগে বাউন্ডারির দিকে চলে যায়। সেখানে চার রান না হলেও তিনটি বাই রান নিয়ে নেন বিরাট কোহলি। এবার পঞ্চম বলে এসে দীনেশ কার্তিককে বোকা বানিয়ে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার করে ম্যাচের উত্তেজনা আরো তিনগুন বাড়িয়ে দেন মোহাম্মদ নাওয়াজ। অসাধারণভাবে দীনেশ কার্তিককে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার করেন উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ রিজওয়ান। এরপর আবারও ওয়াইড দেন মোহাম্মদ নাওয়াজ। শেষ বলে ভারতের দরকার ১ রান। ব্যাটিংয়ে নামা রবিচন্দ্র আশ্বিন সেই ১ রান আরামের সাথে নিয়ে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ভারতকে জয় এনে দেন। ৪ উইকেটের জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করল ভারত।

পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ দুটি করে উইকেট শিকার করেছেন মোহাম্মদ নাওয়াজ ও হারিস রউফ এবং একটি উইকেট পেয়েছেন নাসিম শাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Enable Notifications OK No thanks