Cricket News

সাকিবকে খেলাও, তবেই শেষ চারে যেতে পারবে কলকাতা-ইয়ান বিশপ!!

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলের ১৪তম আসরের পর্দা উঠতে আর কিছু সময়ের অপেক্ষা। তবে এরি মধ্যে এই আইপিএল চলছে নানা তর্ক-বিতর্ক। ক্রিকেট বোদ্ধারা দিচ্ছেন বিভিন্ন মতামত। তবে এসবের মাঝে আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি কলকাতা নাইট রাইডার্সের হট টপিক সাকিব আল হাসান।

কলকাতার একাদশে প্যাট কামিন্স, ইয়ন মরগ্যান, অ্যান্দ্রে রাসেল ও সুনিল নারাইনের জায়গাটা অনেকটা নিশ্চিত। তবে সাকিবের জায়গাটা কোথায়? কলকাতার একাদশে সাকিবের জায়গা হবে কি না তা নিয়ে এখনো রয়েছে সংশয়। গত মৌসুমে খুব একটা ভালো পারফরম্যান্স করতে পারেননি সুনিল নারাইন। টপ অর্ডারে তাকে খেলানো হলেও ব্যাট হাতে নারাইন ছিলেন অনুজ্জ্বল। অন্যদিকে ব্যাট হাতে পুরোপুরিভাবে ব্যর্থ ছিলেন কেকেআরের আরেক অলরাউন্ডার অ্যান্দ্রে রাসেল। তাই ভাবা হচ্ছে হয়তো এই ক্যারিবিয়ানের একজনের জায়গাটা নিতে পারবেন বিশ্বসেরা সাকিব আল হাসান।

ভারতের জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার ও ক্রিকেট বিশ্লেষক হার্শা ভোগলে ও আকাশ চোপড়াসহ আরো অনেকেই বলে দিয়েছেন সুনিল নারাইনের জায়গায় সাকিবকে খেলালেই তবেই সফলতার মুখ দেখবে কেকেআর।

এসব ক্রিকেট বোদ্ধাদের পর এবার সাকিবকে কলকাতার একাদশে চাইলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক ক্রিকেটার ও জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার ইয়ান বিশপ। তার মতে সাকিব হবে কলকাতা নাইট রাইডার্সের ট্রাম্প কার্ড কিংবা তুরুপের তাস।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোর এক অনুষ্ঠানে আইপিএল নিয়ে নিজেদের বিশ্লেষণ ও মতামত জানিয়েছেন, ইয়ান বিশপ, গৌতম গম্ভীর, অজিত আগারকার, ড্যানিয়েল ভেট্টোরি। এই সময় তারা কলকাতার ৪ বিদেশী বাছাই এবং কেন তারা দলে সুযোগ পাবে তার বিশ্লেষণও করেছেন।

কলকাতার একাদশে ৪ বিদেশি ক্রিকেটার সম্পর্কে এই অনুষ্ঠানে ইয়ান বিশপ বলেন, গত আসর বিবেচনা করলে আমি বলব, ইয়ন মরগ্যান, প্যাট কামিন্স, সুনিল নারাইন ও অ্যান্দ্রে রাসেল। টিম সাইফার্ট একজন ব্রেক থ্রু হতে পারে কলকাতার জন্য। সে দারুণ একজন ব্যাটসম্যান। ভারতীয় বোলারদের মধ্যে কে সেরা তা খুঁজে বের করতে হবে। প্রসিধ কৃষ্ণা ও কমলেশ নাগারকোটি ভালো করছে।

বিশপকে যখন প্রশ্ন করা হলো কলকাতার বাজির ঘোড়া কে হবে? তখন তিনি সরাসরি উত্তর দিলেন-সাকিব আল হাসান। ২০১৯ বিশ্বকাপের দিকে তাকিয়ে তিনি কেকেআরের একাদশে সাকিবকেই চান।

এ প্রসঙ্গে বিশপ বলেন, আমি বলব সাকিবকে খেলাও, সে সত্যিই দূর্দান্ত একজন ক্রিকেটার। সে কীভাবে সেরা হয়ে উঠতে পারে তা আমরা ২০১৯ বিশ্বকাপে দেখেছি। কলকাতা শেষ চারে থেকে শেষ করবে। আমার মনে হয় তৃতীয়ও হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this:
Enable Notifications    OK No thanks