Cricket News

সাকিব-মুস্তাফিজদের আইপিএল!! সমালোচক এবং বিসিবি বোর্ড কর্তাদের একহাত নিলেন মাশরাফি!

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলে খেলার জন্য যেনো সব খেলোয়াড়রাই হুমড়ি খেয়ে পড়ে। জাতীয় দলের খেলা বাদ দিয়ে প্রায় প্রতিবছরই বিভিন্ন দলের খেলোয়াড়রা দেশের খেলা বাদ দিয়ে আইপিএল খেলতে ছুটে যান ভারতে। আইপিএল চলছে বেশ কিছু বছর ধরে, তবে “দেশের ক্রিকেট ফেলে আইপিএল খেলা” এমন প্রসঙ্গ কিংবা সমালোচনা এর আগে কখনো ক্রিকেট পাড়ায় চাউর হয়নি।

মূলত এই সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে সাকিব আল হাসানের আইপিএল খেলার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর থেকেই। শুরু হবে আইপিএলের আসর এর মধ্যেই বাংলাদেশ দল যাবে শ্রীলঙ্কা সফরে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের অন্তর্ভুক্ত দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে। তবে দলের সঙ্গে যাবেন না সাকিব আল হাসান। কারণ একটাই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষের সিরিজ না খেলে আইপিএল খেলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য নিজেকে ঝালিয়ে নিতে চান বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। তবে সাকিবের আইপিএল খেলার এই ব্যাপারটি এতো সহজ মনে হলেও এটিকে মোটেও সহজভাবে নেয়নি বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকগুষ্টি। এমনকি বোর্ডের কর্তারাও এই বিষয় নিয়ে জলঘোলা কম করেনি। শেষ পর্যন্ত সকল সমালোচনার ভিড়ে আইপিএল খেলতে ভারতে পাড়ি জমিয়েছেন সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমান।

তবে উল্টো চিত্র দক্ষিণ আফ্রিকার ক্ষেত্রে। দেশে যখন সাকিবের আইপিএল খেলার সিদ্ধান্তের সমালোচনা তুঙ্গে ঠিক সেসময় দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার কাগিসো রাবাদা বললেন, দেশের খেলা তার কাছে আগে, পাকিস্তানের সাথে সিরিজ থাকার কারণে আইপিএলের শুরুর দিকের ম্যাচগুলো খেলতে পারবেন না রাবাদা। রাবাদার এমন বক্তব্য যেনো সাকিবের সমালোচনাতে যেনো আগুনের মধ্যে ঘি ঢেলে দিল। কিন্তু পাকিস্তানের সাথে সিরিজ চলাকালীন সময়েই দেশের খেলার বাদ দিয়ে আইপিএল খেলতে ভারতে উড়াল দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার নিয়মিত স্কোয়াডে থাকা পাঁচ ক্রিকেটার। এর মধ্যে রয়েছে কাগিসো রাবাদা, কুইন্টন ডি কক ও ডেভিড মিলারসহ আরো দুই ক্রিকেটার। পাকিস্তানের সাথে সিরিজে ১-১ সমতায় ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ম্যাচের আগেই দক্ষিণ আফ্রিকাকে বিপদের মুখে ফেলে আইপিএল খেলতে চলে গেছেন এই পাঁচ ক্রিকেটার। তবে এতে কোনো আপত্তি অবশ্যই ছিল না দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ড কিংবা ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থকদের।

কিন্তু একি কান্ড যদি কোনো বাংলাদেশি ক্রিকেটার ঘটাতেন তাহলে কি পরিস্থিতি দাঁড়াতো তা কল্পনা করতে পারছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সবচেয়ে সফলতম সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটারদের আইপিএল খেলতে যাওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক আইডিতে একটি পোস্টের মাধ্যমে সাকিব-মুস্তাফিজদের সমালোচক এবং বোর্ডের কর্তাদের একহাত নিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। সোজাসুজিভাবে না বললেও মাশরাফির কথায়ই বোঝা গেছে সাকিব-মুস্তাফিজদের সমালোচক এবং বোর্ড কর্তাদের উপর কতটা চটেছেন ম্যাশ।

নিজের ফেসবুক আইডিতে মাশরাফি তিনি লিখেন, ডেভিড মিলার, কাগিসো রাবাদা, আনরিখ নরকিয়া, কুইন্টন ডি কক ও লুঙ্গি এনগিডি সবাই ফর্মে আছে এবং প্রথম দুই ম্যাচেই ভালো পারফর্ম করেছে। আজ দেখছি সিরিজ ডিসাইড ম্যাচে নাই। কারণ বুঝলাম কোয়ারেন্টাইন পূরণ করতে হবে আইপিএলের জন্য। ম্যাচের ৩০ ভাগ শেষ কিন্তু কোনো আওয়াজ নাই কমেন্ট্রিতে বা অন্য কোথাও। কল্পনা করতে পারছি না এরকম অবস্থায় আমাদের কেউ গেলে কি হতে পারত! সাকিব আল হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান আল্লাহ তোদের সহায় হন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this:
Enable Notifications    OK No thanks