করোনার ঔষুধ ‘অ্যাভিগান’ বাংলাদেশেই তৈরি! রবিবার হস্তান্তর!

করোনার তান্ডব দিন দিন ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। এই মহামারীর নির্দিষ্ট কোনো ঔষুধ বা ভ্যাকসিন এখন পর্যন্ত আবিষ্কার করা হয়নি।.

করোনার তান্ডব দিন দিন ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। এই মহামারীর নির্দিষ্ট কোনো ঔষুধ বা ভ্যাকসিন এখন পর্যন্ত আবিষ্কার করা হয়নি। কিছু কিছু দেশ এই মহামারীর ভ্যাকসিনের ট্রায়াল দিলেও সেটি আরো পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানোর পর বাজারে ছাড়তে সময় লাগবে প্রায় দেড় বছর।

তবে এর মধ্যেও রয়েছে স্বস্তির খবর। গবেষকদের দাবি মতে, শক্তিশালী এই করোনাভাইরাসকে কাবু করার মতো অস্ত্র আবিষ্কার করে ফেলেছেন। জাপানের বিজ্ঞানীরা করোনা থেকে রক্ষা পাওয়ার ঔষুধ আবিষ্কার করেছেন ইতিমধ্যেই। যেই ঔষুধটি বর্তমানে তৈরি হচ্ছে বাংলাদেশে।

জাপানের ফুজিফিল্ম তয়োমা ফার্মাসিউটিক্যালস লি. তৈরি করলো ফ্যাভিপিরাভির ‘অ্যাভিগান’ নামের ট্যাবলেটটি। যা করোনাভাইরাসকে ধ্বংস করতে সক্ষম। এরই মধ্যে অন্তত ডজনখানেক ঔষুধ যেমনঃ- ফ্যাভিপিরাভির, রেমডেসিভির, ইন্টারফেরন আলফা টুবি, রিবাভিরিন,ক্লোরাকুইন, লোপিনাভার, আরবিডল করোনাভাইরাসের চিকিৎসার সারিতে যোগ হয়েছে।

অ্যাভিগান ট্যাবলেটটির জেনেরিক নাম ফ্লাভিপাইরাভির। এই ঔষুধটি বর্তমানে বাংলাদেশে বেক্সিমকো ফার্মা এবং বিকন ফার্মাসিউটিক্যালস তৈরি করছে।

এর মধ্যে বিকন ফার্মাসিউটিক্যালস ঔষুধটি আগামী রবিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং ঔষুধ প্রশাসনে হস্তান্তর করবে। এছাড়াও যেসব হাসপাতালে করোনা রোগী রয়েছে সেসব হাসপাতালেও হস্তান্তর করা হবে এই ঔষুধ। তবে ফার্মাসিতে এখনই সরবরাহ করা হবে না এখনই। শুধুমাত্র ১০০ জন রোগীর জন্য এখন ঔষুধটি সরবরাহ করা হবে। যার কারণ পর্যাপ্ত ম্যাটেরিয়াল স্বল্পতা। তবে সেই ঘাটতি এই মাসের মধ্যেই পূরণ করবে বলে জানিয়েছে কোম্পানিটি।

অন্যদিকে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস যে সমস্ত হাসপাতালে করোনা রোগী আছে সেসব হাসপাতালে ঔষুধ পৌঁছে দিবে। তবে এই ট্যাবলেটটির প্রতিটির মূল্য ৪০০ টাকা হলেও এখন এটি বিনামূল্যে সরবরাহ করা হবে বলে জানিয়েছে বেক্সিমকো।

জাপান, তুরস্ক ও চায়না ঔষুধটির ব্যবহার করেছে। করোনা রোগে আক্রান্ত রোগীর তিনটি পর্যায়ে এই ঔষুধটি কার্যকর। তবে গর্ভস্থ শিশুর উপর প্রয়োগ করলে এটির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: