এই মাত্র পাওয়া খবর!! গত ২৪ ঘন্টায় ১৮ জনের মৃত্যু!

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দিন দিন বেড়েই চলেছে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বিশ্বের প্রায় ২ শতাধিক দেশ ও অঞ্চল। এই মরণঘাতী.

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দিন দিন বেড়েই চলেছে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বিশ্বের প্রায় ২ শতাধিক দেশ ও অঞ্চল। এই মরণঘাতী এই ভাইরাসে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে মোট ৯ লাখ ৩৮ হাজার ৪৫২ জন। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে মোট ৪৭ হাজার ২৮৯ জন।

এদিকে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের প্রাণ হারিয়েছে ৫ হাজার ১১১ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছে ৯০৮ জন। যা একদিনে সর্বোচ্ছ মৃত্যুর রেকর্ড। এর মধ্যে ১৮ জন বাংলাদেশি শুধু নিউইয়র্কেই মারা গেছেন। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ৫৩ বাংলাদেশির মৃত্যু ঘটেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে মোট ২ লাখ ১৫ হাজার ২৪৪ জন। গত ২৪ ঘন্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় সাড়ে ২৫ হাজার মানুষ।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনার কবলে সবচেয়ে বেশি পড়েছে নিউইয়র্ক শহর। নিউইয়র্কে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে এই ভাইরাস। দেশের প্রায় ৪০ শতাংশ করোনা আক্রান্ত রোগী এই শহরের। ১ এপ্রিল (বুধবার) নিউইয়র্কে মোট ৭ হাজার ৯১৭ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এদিন মৃত্যু ঘটেছে ৩১৯ জনের। এর ফলে শুধুমাত্র নিউইয়র্ক শহরেই মৃতের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ২১৯ জনে।

নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত আজকাল পত্রিকার সম্পাদক ও জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশি বিজনেস এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি জাকারিয়া মাসুদ বলেন, নিউইয়র্কে কয়েক লাখ বাংলাদেশির মধ্যে কমপক্ষে ৫০ হাজার আছেন যারা দৈনিক পারিশ্রমিকে কাজ করেন। অনেকে ট্যাক্সি চালান। এসব মানুষের বিপদ সবচেয়ে বেশি। বাংলাদেশিদের জমজমাট জ্যাকসন হাইটের প্রায় সব কিছুই বন্ধ। ট্যাক্সি চালক ও যারা ট্যাক্স দেন তারা কিছু প্রণোদনা পাবেন।

জাকারিয়া মাসুদ আরো জানান, নিউইয়র্ক পুলিশের পাঁচ শতাধিক সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। অনেক পুলিশ সদস্য সেলফ আইসোলেশনের কথা বলে ছূটিতে আছেন। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না হলেও পুলিশ স্বল্পতায় প্রশাসন উদ্বিগ্ন। যদিও প্রয়োজনে সেন্ট্রাল পুলিশ দিয়ে সহায়তার কথা বলা হয়েছে। নিউইয়র্ক পুলিশে অনেক বাংলাদেশি কাজ করেন। তাদেরও বেশ কয়েকজন আক্রান্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত হয়েছি।

সূত্রঃ BD24Report

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: