2022 BPL | Chattogram Vs Khulna | Miraz | শেষ মুহুর্তে মিরাজ জাদুতে কোয়ালিফাই নিশ্চিত চট্টগ্রামের!

Chattogram Challengers have cut the ticket for the final of 2022 Bangabandhu BPL. Mehidy Hasan Miraz team defeated Khulna Tigers by 6 runs in the play-off match.

২০২২ বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ফাইনালের টিকিট কেটে ফেলেছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। প্লে-অফের ম্যাচে খুলনা টাইগার্সকে ৭ রানে হারিয়ে নাটকীয় জয় তুলে নিয়েছে মেহেদী হাসান মিরাজরা।

টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামা চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৮৯ রানের বিশাল রান সংগ্রহ করেছে চট্টগ্রাম। চট্টগ্রামের এই বিশাল রান সংগ্রহের পেছনে ব্যাট হাতে অবদান রেখেছেন চ্যাডউইক ওয়ালটন। ৪৪ বলে ৭ চার ৭ ছয়ে ৮৯ রানের বিশাল রানের ইনিংস খেলেন ওয়ালটন।

এছাড়াও ৩২ বলে ৪ চার ২ ছয়ে ৩৯ রান করেছেন কেনার লুইস অন্যদিকে ৩০ বলে ২ চার ১ ছক্কায় ৩৬ রানের ইনিংস খেলেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

খুলনার হয়ে দুই উইকেট শিকার করেন খালেদ আহমেদ। এছাড়াও নাবিল সামাদ, রুয়েল মিয়া ও মাহেদী হাসান পেয়েছেন ১ টি করে উইকেট।

চট্টগ্রামের দেওয়া বিশাল রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি খুলনা টাইগার্সের। গত ম্যাচে ব্যাট হাতে ঝড় তোলা শেখ মাহেদী হাসান এই ম্যাচে শুরুতেই ফিরে গেছেন ৪ বলে ২ রান করে। কিন্তু ব্যাট হাতে একপ্রান্ত আগলে রেখেছিলেন অ্যান্দ্রে ফ্লেচার। ব্যাট হাতে এদিনও ঝড় তুলতে থাকেন ফ্লেচার।

দলীয় ৪৩ রানে সৌম্য সরকার ১ রান করে ফিরে যাওয়ার পর ফ্লেচারকে সঙ্গ দিতে থাকেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। ২৯ বলে ১ চার ৪ ছক্কায় ৪৩ রানের ঝড় তোলা মুশফিককে ফিরেয়ে চট্টগ্রাম শিবিরে স্বস্তি এনে দেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

ব্যাটিংয়ে নেমে হাফসেঞ্চুরি করা ফ্লেচারকে নিয়ে ব্যাট হাতে তান্ডব চালাতে থাকেন ইয়াসির আলী। চার-ছক্কার ঝড়ে দলকে প্রায় জয়ের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গিয়েছিলেন ইয়াসির আলী। ১৮তম ওভারে শরিফুলকে ছক্কা হাঁকানোর পর বেনি হাওয়েলের হাতে তালুবন্দি হয়ে সাজঘরে ফিরতে হয়েছে ইয়াসির আলীকে। ২৪ বলে ৪ ছক্কা ২ চারে ৪৫ রানের ঝড় তুলে আউট হন ইয়াসির। শেষ ওভারে খুলনার প্রয়োজন ছিল ১৬ রান সেই ওভারে মেহেদী হাসান মিরাজ দেখিয়েছেন বোলিং জাদু, দিয়েছেন মাত্র ৯ বিনিময়ে তুলে নিয়েছেন ১ উইকেট।

ফলে ৭ রানের নাটকীয় জয় তুলে নিয়ে ২০২২ বঙ্গবন্ধু বিপিএলের প্রথম দল হিসেবে ফাইনালে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

চট্টগ্রামের হয়ে বল হাতে দুই উইকেট শিকার করেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। অন্যদিকে নাসুম আহমেদ, শরিফুল ইসলাম ও মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী তুলে নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Enable Notifications OK No thanks