Bangladesh Vs South Africa | 2nd Test | তাইজুল-খালেদে স্বস্তির দিন পার বাংলাদেশের!

Bangladesh are somewhat relieved at the end of the first day of the second Test in Port Elizabeth. Despite suffering a bit in the first session of the first day, Bangladesh has seen success in the last two seasons with the help of Taizul Islam and Khaled Ahmed.

পোর্ট এলিজাবেথে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিন শেষে কিছুটা স্বস্তিতে আছে বাংলাদেশ। প্রথম দিনের প্রথম সেশনে কিছুটা ভুগতে দেখা গেলেও শেষ দুই শেষনে এসে তাইজুল ইসলাম ও খালেদ আহমেদের হাতধরে সফলতার দেখা পেয়েছে বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার ৫ উইকেট শিকার করে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছেন বাংলাদেশ।

এই টেস্টে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই দাপটের সঙ্গে খেলতে থাকে দক্ষিণ আফ্রিকার দুই ওপেনার ডি এলগার ও সারেল এরইউ। দুজন মিলে গড়েন অর্ধশতক রানের জুটি। তবে দিনের শুরুতেই সফলতার দেখা পেতে পারত বাংলাদেশ। শুরুতেই তৃতীয় ওভারের চতুর্থ বলে সারেল এরইউকে সাজঘরে ফেরাতে পারত বাংলাদেশ। খালেদ আহমেদের করা বলে পরাস্ত সারেল এরইউ। সঙ্গে সঙ্গে এলবিডব্লিউর জোরালো আবেদন উঠে। কিন্তু আউট দেননি আম্পায়ার। তবে নিজের আবেদন নিয়ে শতভাগ নিশ্চিত ছিলেন খালেদ। মমিনুলও রিভিউ নিতে চাইছিলেন ঠিক তখনই পেছন থেকে কেউ একজন রিভিউ নিতে মানা করলে সেই রিভিউ আর নেয়নি অধিনায়ক মমিনুল হক। পরে টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় বল ঠিকঠাক মতো উইকেটে পিচ করে স্ট্যাম্পে আঘাত করে। রিভিউ নিলেই সফল হতে পারত বাংলাদেশ। তবে সেই সুযোগ হাতছাড়া করেছে বাংলাদেশ।

শুরুতে সুযোগ হাতছাড়া করলেও দক্ষিণ আফ্রিকার দলীয় ৫২ রানে সেই সারেল এরইউকে সাজঘরে ফেরান খালেদ আহমেদ। ৪০ বলে ৪ চারে ২৪ রান করে লিটনের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন সারেল এরইউ।

তবে এরইউ ফিরে গেলেও রানের চাকা থেমে থাকেনি দক্ষিণ আফ্রিকার। দলীয় রানকে ওয়ানডে ফরম্যাটের মতো এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকে ডিন এলগার। তুলে নেন চলতি সিরিজের তৃতীয় অর্ধশতক। ভয়ংকর হয়ে উঠা ডিন এলগারকে আউট করে বাংলাদেশ শিবিরে কিছুটা স্বস্তি এনে দিয়েছেন তাইজুল ইসলাম। দলীয় ১৩৩ রানে ৮৯ বলে ১০ চারে ৭০ রান করে আউট হয়েছেন ডিন এলগার।

এরপর কিগান পিটারসেন ও টেম্বা বাভুমা মিলে গড়েন ৫২ রানের জুটি। নিজের অর্ধশতক পূর্ণ করার পর ১২৪ বলে ৯ চারে ৬৪ রান করে তাইজুল ইসলামের বলে ধরা দেন পিটারসেন।

এদিকে নিজের হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করেন টেম্বা বাভুমা অন্যদিকে তাকে দারুণভাবে সঙ্গ দিতে থাকেন রায়ান রিকেলটন। দুজন মিলে গড়েন ৮৩ রানের জুটি৷ দলীয় ২৬৭ রানে দিনের শেষ সেশনে এসে আরো একবার বাংলাদেশকে সফলতা এনে দেন তাইজুল ইসলাম। তাইজুলের বলে ইয়াসির আলীর হাতে ক্যাচ তুলে আউট হন ৮২ বলে ৩ চার ১ ছক্কায় ৪২ রান করা রিকেলটন।

পড়ন্ত বিকেলে বাভুমাকে সাজঘরে ফিরিয়ে বাংলাদেশ দলে আরেকটু স্বস্তির ছায়া এনে দিয়েছেন খালেদ আহমেদ। খালেদের বলে স্লিপে উঠা ক্যাচ দূর্দান্তভাবে তালুবন্দী করেন নাজমুল হোসেন শান্ত। ১৬২ বলে ৭ চারে ৬৭ রান করে আউট হয়েছেন বাভুমা। ফলে ৯০ ওভার ব্যাটিং করে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৭৮ রান করে প্রথম দিনের খেলা শেষ করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Enable Notifications OK No thanks