পাতানো ছিল ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল!! তদন্তে শ্রীলঙ্কা সরকার!

২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনালের পর থেকেই বেশ জোরালো গুঞ্জন উঠেছিলো ম্যাচটি সম্ভবত পাতানো ছিলো। ম্যাচটিতে শুরু থেকেই ভারতকে চাপের মুখে.

২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনালের পর থেকেই বেশ জোরালো গুঞ্জন উঠেছিলো ম্যাচটি সম্ভবত পাতানো ছিলো। ম্যাচটিতে শুরু থেকেই ভারতকে চাপের মুখে রেখেছিলো শ্রীলঙ্কা। কিন্তু শেষ মুহুর্তে গিয়ে খেই হারিয়ে ফেলে লঙ্কানরা৷ ম্যাচের শুরুতে টস হয়েছিলো দুইবার। যার
কারণে ম্যাচ পাতানোর গুঞ্জনটি আরো বেশ জোরালো হয়ে উঠে। প্রথমবার টসে হেরে মানেননি ভারতের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। যার ফলে টস করতে হয় দ্বিতীয়বার। এ সব ব্যাপার নিয়ে জলঘোলাও কম হয়নি। খোদ মুত্তিয়া মুরালিধরনই নাকি টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার পক্ষে ছিলেন না।

তবে এবার সেই ম্যাচ নিয়ে রীতিমতো বোমা ফাটালেন সে সময়কার শ্রীলঙ্কার ক্রিড়ামন্ত্রী মহিন্দানন্দ আলুথগামাগে। তার দাবি সেই ম্যাচটি আগে থেকেই পাতানো ছিলো। যার কারণে ভারত শিরোপা জিততে সক্ষম হয়েছিলো।

দক্ষিণ এশিয়ার তিন দেশ মিলে আয়োজিত হয় ২০১১ সালের বিশ্বকাপ। সে সময় শ্রীলঙ্কার ক্রিড়ামন্ত্রী ছিলেন আলুথগামাগে। এ প্রসঙ্গে সম্প্রতি তিনি জানিয়েছেন, ২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল পাতানো ছিল। এটা হয়েছিলো যখন আমি ক্রিড়ামন্ত্রী ছিলাম। আমি দায়িত্বের সঙ্গে বলছি; তবে দেশের স্বার্থে বিস্তারিত জানাচ্ছি না। ২০১১ সালে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ, যেটা আমরা জিততে পারতাম সেটা আগে থেকেই পাতানো ছিল।

আলুথগামাগের এই বক্তব্যের পর চুপ থাকতে পারছে শ্রীলঙ্কার সরকার। দেশটির বর্তমান ক্রিড়ামন্ত্রী দুলাস আলাহাপ্পেরুমা অবিলম্বে একটি তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন সেই ম্যাচটি নিয়ে তদন্ত করার জন্য। প্রতি দুই সপ্তাহ পর পর তদন্ত রিপোর্ট মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়ারও নির্দেশ প্রদাণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, আলুথগামাগের এমন মন্তব্যের পর বেশ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সে সময়কার শ্রীলঙ্কার সেরা দুই খেলোয়াড় কুমার সাঙ্গাকারা ও মাহেলা জয়াবর্ধনে। সেই সময় শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক ছিলেন কুমার সাঙ্গাকারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: