লড়াই করেও জিততে পারলো না বাংলাদেশ!

বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আজ মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। ওভালে টসে জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশের ওপেনিংয়ে তামিম.

বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আজ মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ।

ওভালে টসে জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় নিউজিল্যান্ড।

বাংলাদেশের ওপেনিংয়ে তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকারের জুটি দূর্দান্ত শুরু এনে দেয় বাংলাদেশকে। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের ম্যাথিউ জেমস হেনরি সেই জুটি টিকতে দিলেন না। বাংলাদেশের জন্য কাটা হয়ে জেমস হেনরি সৌম্য সরকারের উইকেট তুলে নেন বাংলাদেশের দলীয় ৪৫ রানের সময়। ২৫ বলে ২৫ রান করে ফিরে যান সৌম্য সরকার। এর কিছুক্ষণ পর বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে বাধা হয়ে দাঁড়ায় লকি ফারগুসন। বাংলাদেশের দলীয় ৬০ রানের সময় তামিম ইকবালের উইকেট তুলে নিয়ে বাংলাদেশকে বিপদে ফেলে ফারগুসন। সাকিব ও মুশফিকের চেষ্টা বিপদ থেকে বাংলাদেশকে উদ্ধার করার। কিন্তু বেশিদূর যেতে পারলো না সাকিব – মুশফিক জুটি। ৩৫ বলে ১৯ রান করে সাঝঘরে ফিরেন মুশফিক। সাকিব খেললেন তার নিজের ছন্দে। দূর্দান্ত ব্যাটিংয়ের মাধ্যমে তুলে নিলেন অর্ধশতক। ৬৮ বলে ৬৪ রানের একটি দূর্দান্ত ইনিংস খেলে আউট হন সাকিব আল হাসান। ৭ টি চারের মার মারেন সাকিব। সাকিবের পরে দলীয় ১৭৯ রানের সময় আউট হন মোহাম্মদ মিথুন। ৩৩ বলে ২৬ রান করে সাঝঘরে ফিরেন মিথুন। মিথুনের পর দলীয় ১৯৭ রানের সময় মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের উইকেটের পতন ঘটে। মাহমুদুল্লাহ খেলেন ধীর গতিতে করেন ৪১ বলে ২০ রান। মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতও পারলেন না সুবিধাজনক রান করতে। বাংলাদেশের দলীয় ২২৪ রানের সময় মোসাদ্দেক হোসেনের উইকেটের পতন ঘটে। তিনি করলেন ২২ বলে ১১ রান। বাংলাদেশের ব্যাটিং বিপর্যয়ের সময় কিছুটা স্বস্তির ব্যাটিং করলে পেসার অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। ২৩ বলে করলেন ২৯ রান। ৩ টি চার এবং ১ টি ছক্কা হাকান এই উদিয়মান খেলোয়াড়। মেহেদী হাসান মিরাজ ও মাশরাফি বিন মুর্তজার উইকেট হারিয়ে অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ৷ নিউজিল্যান্ডের সামনে টার্গেট ২৪৪ রানের।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে ম্যাথিউ জেমস হেনরি তুলে নেন ৪ টি উইকেট। ট্রেন্ট বোল্ট ২ টি এবং ফারগুসন, ডে গ্রান্ডহোম, স্যান্টনার নিলেন একটি করে উইকেট।

বাংলাদেশের দেয়া লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৩৫ রানে মার্টিন গাপটিলের উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। ব্যাট হাতে নিজের জাদুঘরি খেলা দেখানোর পর এবার বল হাতেও উজ্জ্বল সাকিব আল হাসান। গাপটিলের উইকেট তুলে নিয়ে সেরা অলরাউন্ডার হওয়ার কারণটা জানিয়ে দিলেন সাকিব। ১৪ বলে ২৫ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরেন গাপটিল। নিউজিল্যান্ডের দলীয় ৫৫ রানের সময় আবারও সাকিবের হানা। এবার শিকার হলেন কলিন মুনরো। ৩৪ বলে ২৪ রান করে আউট হন মুনরো। পরপর দুই ওপেনারকে সাঝঘরে ফিরিয়ে নিউজিল্যান্ডকে চাপে ফেলেন সাকিব। কেন উইলিয়ামসন ও রোস টেইলর বাঁধলেন ভয়ংকর জুটি। রোস টেইলর তুলে নিলেন ব্যক্তিগত অর্ধশতক। এই দুইজনের জুটি ভাঙলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। দূর্দান্ত বোলিং এর মাধ্যমে কেন উইলিয়ামসনের উইকেট তুলে নেন মিরাজ। উইলিয়ামসন ফিরলেন ৭২ বলে ৪০ রান করে। এরপরেই একি ওভারে টম লাথামের উইকেট তুলে নেন মিরাজ। এক ওভারে দুই উইকেট তুলে নিয়ে জয়ের পথে পা বাড়ানো নিউজিল্যান্ডকে চাপে ফেললেন মিরাজ। ভয়ংকর রোস টেইলরকে ফেরালেন মোসাদ্দেক হোসেন। ৯১ বলে ৮২ রান করে আউট হন টেইলর। নিউজিল্যান্ডের দলীয় ২১৮ রানে ডে গ্রান্ডহোমের উইকেট তুলে নেন সাইফুদ্দিন। মোসাদ্দেক হোসেন আবারও আঘাত হানলেন কিউই শিবিরে। জেমস নিশাম এর উইকেট তুলে নেন মোসাদ্দেক। নিউজিল্যান্ডের দলীয় ২৩৮ রানের সময় ম্যাট হেনরির উইকেট তুলে নেন সাইফুদ্দিন। এর পরে আর কোনো উইকেট নিতে পারেননি বাংলাদেশের বোলাররা। ফলে নিউজিল্যান্ড ২ উইকেটের জয় পায়।

বাংলাদেশের হয়ে সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ২ টি করে উইকেট তুলে নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: