Messi Mbappe PSG : এমবাপ্পের এই বয়সে মেসি ৪ টি ব্যালন ডি’অর জিতেছে — রুনি | খেলার খবর

Lionel messi Neymar Jr. kylian Mbappe. PSG. Ligue 1. Football news. PSG. Mbappe news. Neymar Mbappe penalty. Neymar Mbappe psg

মেসির সাথে এমবাপের এমন বেয়াদবি দেখে এবার মুখ খুললেন ইংল্যান্ডের সাবেক ফুটবলার ও বর্তমানে ডিসি ইউনাইটেড এর হেডকেচ ওয়েন রুনি। মেসি বিশ্বমানের ফুটবলার এটায় কোনো সন্দেহ নেই। মেসি এমবাপের সময় থাকতে ৪টি ব্যালন ডি অর মালিক ছিলেন। মেসির জায়গায় তাকে বিবেচনা করা বোকামি ছাড়া কিছুই নয়। তাই তো ওয়েন রুনি বলেন,” ২২-২৩ বছরী একটা ছেলে মেসিকে কাধঁ দিয়ে ধাক্কা মারে! এর চেয়ে বড় দাম্ভিকতা আমি আমার জীবনে দেখেনি। কেউ এমবাপেকে মনে করিয়ে দিন যে ২২বছরের মসির ৪টি ব্যালন ডি অর ছিল”।

ওয়েন রুনির কথায় বোঝা গেছে বাচ্চাকে নিজেকে নম্র করতে হবে যদি সে তার ক্যারিয়ারে বড় অর্জন করতে চায়। কাইলিয়ান এমবাপ্পে তার পুরো ৮ বছরের লিগ ওয়ানে ক্যারিয়ারে ১৩৬ গোল করেছেন। যদিও মেসি একাই ২০১১এবং ২০১২ সালে ১৫০ টিরও বেশি গোল করেছিলেন।
ইগো অনেক বেশি এমবাপের। নেইমার এবং মেসির ফর্মে থাকা অবস্থায় তিনি তাদের বুটের কাছাকাছি যেতে পারেন না। সমর্থকরা খেপেছে এমবাপের উপর মেসির সাথে এমন আচরন করায়।

মেসি ছাড়াও নেইমারের সাথে হাতাহাতি করেছে এমবাপে পেনাল্টি মিসকে ঘিরে। তবে নেইমার এবং এমবাপ্পের মধ্যে সমস্যা পেনাল্টি নেওয়া নিয়ে নয়। এটা তার চেয়েও গভীর। এমবাপ্পে তার ম্যানেজমেন্টকে নেইমারকে দল থেকে বের করে দিতে বলেছিল যদিও বিশ্বাস করে নেইমার খুঁজে পাবে না।নেইমার পরে জানতে পেরে চোটেঁছেন এমবাপের উপর।ড্রেসিংরুমে হয়েছে হাতাহাতি ও জিনিস ছুড়ে মারাও। সতির্থরা এসে তাদের আলাদা করেন। নেইমার বনাম এমবাপ্পে দ্বন্দ্বে এমবাপে পেনাল্টি দেওয়া ​​থেকে বাদ পড়েছেন।

পেনাল্টির পর এমবাপ্পে ভিতিনহার কাছ থেকে বল চেয়েছিলেন, যিনি তাকে উপেক্ষা করেছিলেন কারণ লিওনেল মেসি ব্যাকগ্রাউন্ডে অবিশ্বাসের সাথে দেখেছিলেন। ফরাসি স্ট্রাইকার পেনাল্টি নিতে চেয়েছিলেন কিন্তু ব্রাজিলিয়ান অর্ধেক অঙ্গভঙ্গি করতে যাচ্ছিলেন না।পরে এমবাপ্পে ভিতিনহার কাছ থেকে বল চেয়েছিলেন, যিনি তাকে অগ্রাহ্য করেছিলেন কারণ লিওনেল মেসি ব্যাকগ্রাউন্ডে অবিশ্বাসের সাথে দেখেছিলেন। এ নিয়ে এমবাপে মেসিকে হিংসে করছেন। আর সেটা সামাজিক মাধ্যমকে ভাইরাল হয়। শুরু হয় মেসি -নেইমার এমবাপের দ্বন্দ্ব এটি নিয়ে পিএসজির কোচ চিন্তিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Enable Notifications OK No thanks