বিশ্বকাপের আগেই মুশফিককে নিয়ে ভারতীয় মিডিয়ার অপপ্রচার!

বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ক্রিকইনফোর মতো অনেকেই বিভিন্ন খেলোয়াড়দের কে নিয়ে নানাধরণের তালিকা প্রকাশ করেছেন। বিশ্বকাপের সর্বকালের সেরা একাদশ নির্বাচন করেছেন.

বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ক্রিকইনফোর মতো অনেকেই বিভিন্ন খেলোয়াড়দের কে নিয়ে নানাধরণের তালিকা প্রকাশ করেছেন। বিশ্বকাপের সর্বকালের সেরা একাদশ নির্বাচন করেছেন ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যম ক্রিকইনফো৷ যেখানে নেই কোনো বাংলাদেশের খেলোয়াড়ের নাম। অন্যসব ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইটে প্রকাশ করছে বিভিন্ন রকম একাদশ। তার মধ্যে অন্যতম একটি একাদশ হলো ‘মোস্ট হেটেড ইলেভেন অফ ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট ‘। অর্থাৎ ক্রিকেটের সবচেয়ে বেশি ঘৃনিত একাদশ। এই তালিকাটি প্রকাশ করেছে ‘ক্রিকট্র্যাকার’ নামক একটি ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট। আশ্চর্যের ব্যাপার হলো তাদের এই তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশের উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

ক্রিকট্র্যাকারের ঘৃনিত একাদশে শুধু মুশফিক নয় রয়েছে রিকি পন্টিং এবং শেন ওয়ার্ন এর মতো কিংবদন্তি খেলোয়াড়দের নাম!

খেলার মাঠে নেই কোনো অশোভন আচরণ, নেই কোনো অশ্লিল অঙ্গভঙ্গি তারপরেও কেনো মুশফিক এই তালিকায়? এছাড়াও মুশফিককে কখনো মাঠে উত্তেজিত হতে দেখা যায় নি। আরেকটি আশ্চর্য জনক ঘটনা হলো এই তালিকায় নেই ভিরাট কোহলির নাম! ক্রিকেট মাঠে অশোভন আচরণ এবং অশ্লিল অঙ্গভঙ্গি করার জন্য সবসময় সমালোচনায় ঘিরে থাকেন ভিরাট কোহলি। কিন্তু তার নামই নেই এই তালিকায়। আইপিএলের এবারের আসরে জশ বাটলারকে মান কান্ডিং করার জন্য বিতর্কিত হয়েছিলেন ভারতের রবিচন্দ্র আশ্বিন। তার নাম দেয়া হয়েছে এই তালিকায়।

মুশফিকের এই তালিকায়থাকার কারণ হিসেবে ক্রিকট্র্যাকার জানিয়েছে মিঃ ডিপেন্ডেবল নামে খ্যাত এই তারকা নাকি খেলার মাঠে দৃষ্টিকটু উদযাপন করেন এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপ্রয়োজনীয় মন্তব্য এবং পোস্টের কারণে ঘৃণিত। এই কারনটি শুধুমাত্র ভারতীয় সমর্থকদের। মূলত ২০১৬ সালে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এর কাছে ভারত হারের পর একটি ছবি পোস্ট করে আনন্দ প্রকাশ করেছিলেন মুশফিক। এই ব্যাপারটি ভালো চোখে দেখেনি ভারতীয় ভক্তরা। মূলত এই কারনেই মুশফিককে রেখেছেন ঘৃনিত একাদশে। অথচ খেলার মাঠে ভিরাট কোহলির মতো উত্তেজিত খেলোয়াড় যেনো সচরাচর চোখে পড়ে না। বরং দৃষ্টিকটু উদযাপন কোহলি করে থাকে সবচেয়ে বেশি। উইকেট নিয়ে ব্যাটসম্যানকে গালি দেওয়া এবং বিরুপ অঙ্গভঙ্গি যেনো কোহলির নিত্যদিনের কাজ। আর এর জন্যই তিনি ঘিরে থাকেন সমালোচনায়। কিন্তু হাস্যকর ব্যাপার হলো এটি ভারতীয় ভক্তদের চোখে পড়ে না।

এক নজরে দেখে নিন ঘৃণিত একাদশের তালিকা।

সালমান বাট, জেসি রাইডার, রিকি পন্টিং, গ্রেগ চ্যাপেল, মোহাম্মদ আজহার উদ্দিন, মাইকেল ক্লার্ক, মুশফিকুর রহিম, শান্তাকুমারন শ্রীশান্ত, রবিন্দ্র আশ্বিন, মোহাম্মদ আসিফ ও শেন ওয়ার্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: