জয় পেতে যে দুই রাস্তা খোলা আছে বাংলাদেশের সামনে তা জানিয়ে দিলেন সাকিব!!

আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশ দলের নাজেহাল অবস্থা। প্রথম ইনিংসে আফগানিস্তানের ছুড়ে দেওয়া ৩৪২ রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ২০৫.

আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশ দলের নাজেহাল অবস্থা। প্রথম ইনিংসে আফগানিস্তানের ছুড়ে দেওয়া ৩৪২ রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ২০৫ রান অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ দল। দ্বিতীয় ইনিংসে আফগানিস্তান ব্যাট হাতে তুলে ২৬০ রান মোট ৩৯৭ রানের টার্গেট দেয় বাংলাদেশকে।

৩৯৭ রানের বিশাল টার্গেট তাড়া করতে নামা বাংলাদেশের অবস্থা করুণ। ১৩৬ রানেই ৬ উইকেট হারিয়ে বসে আছে বাংলাদেশ দল। ব্যাট হাতে মুশফিক রিয়াদরা ছিলেন স্লান। সাকিব এবং সৌম্য সরকার রয়েছেন অপরাজিত। মাত্র ৪ উইকেট বাকি আছে বাংলাদেশের। মাত্র ৪ উইকেট হাতে রেখে রান তাড়া করতে হবে ২৬২ রান। এই ম্যাচ জেতা প্রায় বাংলাদেশ দলের হাতের বাইরে চলে গেছে। একপ্রকার রেকর্ড গড়েই জিততে হবে বাংলাদেশকে এই ম্যাচটি।

তবে এখনো জয়ের আশা বাচিঁয়ে রাখতে চান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ম্যাচ এখনই হাতছাড়া করতে নারাজ সাকিব। জানান দিলেন কীভাবে জেতা সম্ভব এই ম্যাচটি।

নিজে দেড়শ রান এবং অন্য কেউ একজন একশর উপরে রান করতে পারলেই এই ম্যাচ জেতা সম্ভব বলে মনে করেন সাকিব।

এ ব্যাপারে অধিনায়ক বলেন, টেস্ট জিততে আর কতো দরকার? ২৭০? ( আসলে ২৬২)। একজন ১৫০ আর একজন ১২০ করলেই তো হয়ে যায়। আমি যদি দেড়শ করিও অন্য প্রান্তে আরেকজনকে এক শ তো করতে হবে। সেটা এখন সৌম্যকে করতে হবে।

অধিনায়ক সাকিবের কথা অদ্ভুত শোনা গেলেও সাকিব এখনো আশাবাদী ম্যাচ জয়ের ব্যাপারে। এর সঙ্গে সঙ্গে ম্যাচ জয়ের জন্য আরো একটি উপায় বাতলে দিলেন সাকিব আল হাসান।

রশিদ – নবি – জহিরদের বোলিং তোপের সামনে এই রান তাড়া করা অসম্ভব ব্যাপার বটেই। সাকিব অন্য উপায়ও বলে দিলেন। সাকিব অনেকটা মজা করেই বললেন, বৃষ্টি বাঁচাতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: