এই ৩ খেলোয়াড়কে নিলে বাংলাদেশ হতে পারতো বিশ্বকাপে ভারতের চেয়ে শক্তিশালী দল!

এবারের বিশ্বকাপের প্রথম চার ম্যাচ ভালো যায়নি বাংলাদেশ দলের। অনেক প্রত্যাশা নিয়ে এবারের বিশ্বকাপ শুরু করেছিলো টাইগাররা। গত চার বছর.

এবারের বিশ্বকাপের প্রথম চার ম্যাচ ভালো যায়নি বাংলাদেশ দলের। অনেক প্রত্যাশা নিয়ে এবারের বিশ্বকাপ শুরু করেছিলো টাইগাররা। গত চার বছর ধরে সুন্দর একটি দল গঠন করার জন্য কাজ করে যাচ্ছিলো বিসিবি এমনকি এবারের বিশ্বকাপের আগে এমন এক দল গড়তে পারতো বাংলাদেশ যে দল হারাতে পারতো যেকোনো দলকে।

এবারের বিশ্বকাপের সুপার পাওয়ার দল ভারতের মতো দল শক্তিশালী দল গঠন করতে পারতো তামিম – সাকিবরা। তবে বিসিবির ভুলে সেটি সম্ভব হয়নি। মূলত দলে তিনটি পরির্বতন আনলেই এবারের বিশ্বকাপের সবচেয়ে শক্তিভর দল হতে পারতো বাংলাদেশ। সেই লক্ষ্যে বাংলাদেশ দলের উচিত ছিলো টপ অর্ডারে ইমরুল কায়েসকে আনা। যার মাধ্যমে বাংলাদেশ ওপেনিংয়ে পেতো অন্যতম অভিজ্ঞ এক জুটি। মারকুটে ভঙ্গিতে খেলা সৌম্য সরকারকে সুযোগ দেওয়া যেতো মিথুনের জায়গায়৷।

দ্বিতীয়ত দলে গতির খেলোয়াড় তাসকিনকে আনা। এবারের বিশ্বকাপের আগে হয়ে যাওয়া বিপিএলে সর্বোচ্ছ উইকেট শিকারিদের মধ্যে ছিলেন তাসকিন আহমেদ। ইংল্যান্ডের এই পিচে তার গতির বল আলো ছড়াতো। তবে এবারের বিশ্বকপের আগে বিসিবি সবচেয়ে বড় ভুল করেছে সন্দীপ লামিচানের মতো খেলোয়াড়কে দলে নেওয়ার সুযোগ থাকা সত্ত্বেও না নিয়ে। বাংলাদেশের হয়ে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছিলেন সন্দীপ লামিচানে। কিন্তু বিসিবির পক্ষ থেকে তা না করে দেওয়া হয়। নিসঃসন্দেহে ইমরুল কায়েস, তাসকিন আহমেদ এবং সন্দীপ লামিচানে বাংলাদেশ স্কোয়াডে থাকলে পরিপূর্ণ হতো টাইগার স্কোয়াড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: